product selection for business
product selection for business

আগের দিন আমরা জেনেছিলাম
এফ কমার্স ব্যবসা কি? কেন করবেন? এবং কিভাবে একটি ইফেক্টিভ পেজ খোলা যায়।
এখানে পড়ুন – প্রথম পর্ব
আজকে আমরা জানবো কিভাবে ইফেক্টিভ পন্য সিলেক্ট করা যায়?

কিভাবে পন্য সিলেক্ট করবেন?

১. পরিচিতদের টার্গেট করুনঃ-

আপনার আশেপাশের মানুষগুলোই হবে আপনার প্রথম ক্রেতা। তাই খুজে বের করুন আপনার আশেপাশের
মানুষ, ফেসবুক ফ্রেন্ড, বিভিন্ন গ্রুপে কি পন্যের চাহিদা আছে বা অভাব আছে যেটা মানুষ চায় কিন্তু সহজে
হাতের কাছে পাচ্ছে না। কাস্টমারের সমস্যা দুর করবে এমন পন্য সিলেক্ট করুন।

২. নিজের ক্রিয়েটিভিটি টাকে খুজে বের করুন

ওমুক ড্রেস বিক্রি করছে এততো ভাল করছে আমিও ড্রেস করবো। কে কি করছে সেটা নিয়ে মাথা না
ঘামিয়ে নিজের ভাল লাগাটাকে খুজে বের করুন, নিজের ক্রিয়েটিভিটি টাকে খুজে বের করুন। ওমুক ড্রেস বা
কসমেটিকস বিক্রি করে সফল হয়ছে বলে আপনিও হবেন এর কোন মানে নাই। সকল ব্যবসার একটা গোপন
পথ থাকে যেটা কেউ আপনাকে বলবে না। তাই নিজের ভাল লাগা টাকে প্রাধান্য দিন। সেটা শিখুন, জানুন
এরপর শুরু করুন।

৩. সহজলভ্য পণ্য থেকে দূরে থাকুনঃ-

বর্তমানে সহজলভ্য পন্য গুলো অনেক মানুষ নিয়ে কাজ করছে। তাই অতি সহজলভ্য পন্য সিলেক্ট করবেন
না। এমন পন্য খুজে বের করুন যেটা মানুষের সমস্যার সমাধান করবে এবং লং-টার্ম ব্যবহার করতে পারে।

৪. Trend খুজে বের করুন

বর্তমানে কি কি জিনিসের ট্রেড চলছে এবং ভবিষ্যতে ভাল চাহিদা হবে এমন পন্য সিলেক্ট করুন। আজকে
শুরু করে কালকে ইনকামের চিন্তায় পন্য পছন্দ করলে আপনার ব্যবসাও পরশুদিন বন্ধ হয়ে যেতে পারে ।
সুতরাং আজীবন চাহিদা থাকবে এবং মানুষের সমস্যার সমাধান দিবে এমন পন্য পছন্দ করুন।

৫. ইউনিক পণ্য এবং রিটার্ন কাস্টমারঃ-

ইউনিক পন্য পছন্দ করুন এবং খেয়াল রাখবেন সে পন্য যারা কিনবে তারা যেন সবাই আপনার রিটার্ন
কাস্টমার হয়। মানুষের সমস্যার সমাধান করবে এবং বার বার সেটার প্রয়োজন হবে এমন ইউনিক পন্য পছন্দ
করুন। রিটার্ন কাস্টমার আসলে আপনার ব্যবসার গ্রোথ হবে।

৬. স্টোরেজ করা যায় এবং সহজে ডেলিভারি যোগ্য

ই-কমার্স এবং এফ-কমার্সের পন্য সিলেক্ট করার সময় সবসময় খেয়াল রাখবেন পন্য গুলো যেন ইজি
স্টোরেজ করা যায় এবং সহজে ডেলিভারি দেওয়া যায়।

৭. ভাল প্রফিট মার্জিন

আপনার প্রফিট মার্জিন যেন ভাল থাকে সেটা খেয়াল রাখবেন। এমন কোন পন্য সেল করবেন না যেটা
মার্জিন কম। তাহলে দেখা যাবে ডেলিভারি দেওয়ার পর আপনার কিছুই থাকবে না উল্টা পকেট থেকে ২০/৫০
টাকা চলে গেছে।

৮. বর্তমানে সর্বচ্চ চাহিদা

বর্তমান মানুষ গুলো কোন জিনিস গুলোতে বেশি ঝুকছে এবং কিনছে এবং ভবিষ্যতেও কিনবে সেগুলো
নিয়ে অনেক অনেক ভাবুন এবং গবেষনা করুন এবং সেগুলোর মধ্যে পন্য সিলেক্ট করুন।

৯. মানুষের শখের পণ্য খুজে বের করুন

বর্তমান মানুষের অনেক শখ আছে যেগুলোর জন্য ৭০% মানুষ বহু টাকা ব্যয় করে। ধনী গরীব সবাই
করে। সেগুলো খুজে বের করুন।

১০. সমস্যার সমাধান খুজে বের করুন

আপনি যে প্রফেশনে আছেন সেটা নিয়ে ভাবুন হয়তো সেখানেও অনেক ভালে কিছু পেয়ে যেতে পারেন।
যেটা সেখানে থাকা মানুষ গুলোর সমস্যা সমাধান আনতে পারে।

১১. কাস্টমার রিভিউ পড়ুন

আপনি অনলাইন এবং বিভিন্ন ই-কমার্স সাইটে যেয়ে কাস্টমার রিভিউ পড়তে পারেন। এটা খুবই ভালো
কাজে দিবে আপনাকে পন্য সিলেক্ট করার জন্য।

১২. কিওয়ার্ড রিচার্জ করুন

সবচেয়ে ভাল হয় আপনি যদি কিওয়ার্ড রিচার্জ করতে পারেন । তাহলে আপনি খুব সহজে বুঝতে পারবেন
মানুষ কি পন্য বেশি সার্চ করছে এবং কত টাইম ধরে করে আসছে । কিওয়ার্ড রিচার্জ করার পর আপনি খুব
সহজে মানুষের চাহিদা বুঝে পণ্য নির্ধারন করতে পারবেন এবং আপনি জানতে পারবেন কিভাবে ইফেক্টিভ পন্য
সিলেক্ট করা যায়? এটা আপনাকে সহজে কাস্টমার পেতে সহযোগিতা করবে।

একজন ব্যবসায়ীর জন্য পণ্য বা সার্ভিস সেলেক্ট করা কঠিন কাজ, যা আপনার
বুদ্ধিমত্তা, সৃজনশীলতা ও মানুষের সমস্যা সমাধান থেকে খুজে বের করতে হবে।

আশা করি আপনি লেখাটি পড়ার পর বুঝতে পারছেন যে, কিভাবে ইফেক্টিভ পন্য সিলেক্ট করা যায়? এবং
কেন ইফেক্টিভ পন্য সিলেক্ট করা ব্যবসার জন্য গুরুত্বপুর্ন ।

পরবর্তী পর্বে জানতে পারবেনঃ-
১০ টি বেস্ট সেলিং এবং হাই ডিমান্ডিং পন্য সম্পর্কে। ❤

2 COMMENTS

  1. পর্ব-১ঃ এফ কামার্স ব্যবসা কি? কেন এফ কমার্স ব্যবসা করবেন? কিভাবে একটি আকর্ষণীয় পেজ তৈরি করা যায়? | Busi

    […] […]

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here